একলা আমি

0
112

গুড়ো গুড়ো স্মৃতিগুলো জমাট বাঁধে মেঘে
ঝিরিঝিরি বৃষ্টি নামে মনখারাপের দেশে।

একটা দুটো তারা, সাথে চার দুগুনে ব্যাথা
মনে করায়, জাগিয়ে তোলে ভুলতে চাওয়া কথা।

টুকরো হওয়া চিঠির পাতা বাতাস বয়ে আনে
শব্দগুলো চেনা ধূসর, বাস্প চোখের কোনে।

বৃষ্টির পায়ে নূপুর, আর সন্ধ্যে নামে মাঠে
শাঁখের শব্দে হলুদ স্মৃতি ভিজে হাওয়ায় মেশে।

ছেঁড়া খাতার হলদে পাতায় ভুলে যাওয়া সুর
চেনা গানের অচীন পাখি আজকে বহুদূর।

বৃষ্টির পায়ে নুপুর আর সন্ধ্যে নামে মাঠে
রেলিঙে ভর, দাঁড়াই একা, সুয্যি নামে পাটে।

মনখারাপের জলছবিতে ঝাপসা চেনা মুখ
তুলির টানে জলের রঙে আঁকতে সুখ।

ইলশেগুঁড়ি বৃষ্টি নামে মনখারাপের দেশে
একা মাঠে দাঁড়িয়ে আমি, একটা দিনের শেষে।

দিনের হিসেব যাচ্ছে গোনা, সময়ের পিঠে জিন
পাঁচ দুগুনে দশ, বোঝা বাড়ছে দিন দিন।

জীবন ফেরিওয়ালা তার ক্লান্ত পায়ের তালে
বেলাশেষের পসরা হাঁকে, ভাঙা মনের হাটে।

অঝোর ধারায় বৃষ্টি নামে, চোখের পাতা ভেজা
রাত্রি নামে শরীর মনে, জানলায় আমি একা।

 

কবি পরিচিতি :অদিতি দে,  আমি অদিতি । আমি একজন গৃহবধু । এছাড়া আমার নিজের সম্পর্কে বলার কিছু নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here